• সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১

কক্সবাজারসহ ১১ জেলার পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ

মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। আর এ জন্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে সমুদ্র সৈকতসহ কক্সবাজারের সব পর্যটন কেন্দ্রগুলো বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত এ ঘোষণা বহাল থাকবে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গাইড লাইন মেনে হোটেল-মোটেল, রেস্টুরেন্ট খোলা থাকবে।

বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৯টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশিদ।

তিনি বলেন, ‘দেশে করোনা সংক্রমণের হার আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পর্যটন মন্ত্রণালয় থেকে জেলা প্রশাসনের কাছে একটি নির্দেশনা পৌঁছায়। এতে হোটেল-মোটেলসহ কক্সবাজারের সকল পর্যটন কেন্দ্রগুলো আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।’

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘সরকারের নির্দেশনা মতো ব্যবস্থা নিতে ট্যুরিস্ট পুলিশসহ প্রশাসনের সংশ্লিষ্টদের তাৎক্ষণিকভাবে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আর যে বা যারা নির্দেশনা অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক আইনগত ব্যবস্থা নিতেও বলা হয়েছে।’

জেলা প্রশাসক জানান, যেহেতু হোটেলে শুধু পর্যটক থাকে না। অন্য উপজেলা থেকে জেলা সদরে চিকিৎসাসহ নানা কারণে লোকজন আসে ও হোটেলে থাকে। তাই এগুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা রাখবে। হোটেল-মোটেল, রেস্টুরেন্ট খোলা থাকবে। তাদেরকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যবসা করতে হবে।

এদিকে জেলা প্রশাসনের নির্দেশনার পর কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে পর্যটকদের আনাগোনাসহ পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি সমুদ্র সৈকতসহ পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে নজরদারি রাখতে ট্যুরিস্ট পুলিশের টহলও জোরদার করা হয়েছে।

এর আগে করোনা মহামারির কারণে গত বছর ১৮ মার্চ থেকে কক্সবাজারের সকল পর্যটন কেন্দ্রগুলো বন্ধ ঘোষণা করেছিল প্রশাসন। পরবর্তীতে গত বছর ১৭ আগস্ট থেকে স্বাস্থ্যবিধিসহ নানা নির্দেশনা মানার শর্তে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়েছিল।

READ  কর্ণফুলী টানেল: সম্ভাবনার নতুন দুয়ার

Pial

Read Previous

ববি শিক্ষার্থীদের আবিষ্কার, দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীর জন্য ‘টকিংগ্লাস’

Read Next

করোনাকালে অ্যাজমার সমস্যা নিয়ন্ত্রণে কী খাবেন, কী খাবেন না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *