• জুন ১৩, ২০২১

বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক গাড়ি?

সম্ভবত বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক গাড়ি ‘ব্রুটাস’৷ জার্মানির একটি প্রযুক্তিবিষয়ক মিউজিয়ামে থাকা গাড়িটি মাঝেমধ্যে রাস্তায় চালাতে বের করা হয়৷ গাড়িটি চলে বিমানের ইঞ্জিন দিয়ে৷

হেরমান লায়ার৷ জার্মানির টেকনিক মিউজিয়াম জিনসহাইম স্পায়ারের প্রধান৷ তিনি মাঝেমধ্যে ব্রুটাস চালান৷ তিনি বলেন, ‘‘যখন ইঞ্জিন চলা শুরু করে তখন দারুণ লাগে৷ আর যখন গতি বাড়তে থাকে তখন ইঞ্জিনের প্রতি আপনার মুগ্ধতাও বাড়ে৷ তবে সেই সময় আপনাকে শক্ত হাতে স্টিয়ারিংটা ধরে রাখতে হবে৷ কারণ আপনি আবেগ ধরে রাখতে না পারলে ঘটনা ঘটা শুরু করবে৷’’

ব্রুটাসকে রাস্তায় চলার উপযোগী করতে আট বছর লেগেছে৷ লায়ার ও মিউজিয়ামের অন্য সদস্যরা ১৯৯৮ সালে কাজ শুরু করেছিলেন৷ তখন এটি মিউজিয়ামের অন্যতম আকর্ষণ ছিল৷

১৯০৭ সালের অ্যামেরিকান ভিন্টেজ কার লাফ্রসের চেসিসে একটি ৪৭-লিটার এয়ারক্রাফট ইঞ্জিন বসান তারা৷

হেরমান লায়ার বলেন, ‘‘ইঞ্জিনটা অলস বসে ছিল৷ একদিন মনে হলো, যদি এটাকে চালানোর চেষ্টা করি তাহলে কেমন হয়? এর আগে কয়েকবার সংস্কারের কাজ শুরু করেও পিছিয়ে এসেছিলাম আমরা৷ কারণ ইঞ্জিনটাতো আসলে ওড়ার জন্য বানানো হয়েছিল৷ আর আমরা তাকে চালাতে চাইছি৷ তাই ভয় হচ্ছিল, না জানি কেমন আচরণ করে!’’

গত ১৫ বছরে স্পায়ারের একটি এয়ারফিল্ড ও একটি টেস্ট ট্র্যাকে নতুন রেকর্ড গড়ার চেষ্টা চালালেও কেউ এখনও বলতে পারেননা, গাড়িটা ঠিক কত জোরে চলতে পারে৷

READ  ‘আলাপ’ আসছে ২৬ মার্চ

admin

Read Previous

যারা বই প্রকাশের জন্য মানুষ হত্যা করে, তারা সমাজ ও রাষ্ট্রের শত্রু’

Read Next

তুষার ঝড়ে প্রায় স্থবির হয়ে পড়েছে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহরের জনজীবন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *