• জুন ১০, ২০২১

সততা, নিষ্ঠা আর দায়িত্বশীলতার সাথে দুই বছরে এডিএম মোহাঃ শাজাহান আলি।

সততা, নিষ্ঠা আর দায়িত্বশীলতার সাথে দুই বছরে এডিএম মোহাঃ শাজাহান আলি।

জেলা প্রশাসন, কক্সবাজারের অন্যতম দায়িত্বশীল কর্মকর্তা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব মোহাঃ শাজাহান আলি দুই বছর সাফল্যের সাথে অতিবাহিত করতে যাচ্ছেন। তিনি তাঁর নিজ গুণে গত দুই বছর ধরে কক্সবাজারের উন্নয়ন ও মানবিক কাজে সম্পৃক্ত রয়েছেন। এর আগে ২০১৬-২০১৮ সালে রামু উপজেলায় রামুবাসির মনে জায়গা করে নিয়ে ছিলেন। রামু উপজেলায় একজন সৃষ্টিশীল, জনপ্রিয় ও জনবান্ধন উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছিলেন জনাব মোহাঃ শাজাহান আলি।

কক্সবাজারের প্রাক্তন জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ কামাল হোসেনের তত্বাবধানে জেলা প্রশাসনের একাধিক মানবিক উদ্যোগগুলোর সাথে সততা ও নিষ্ঠার সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। ২০১৯ সালের ২০ এপ্রিল কক্সবাজার ডিসি কলেজের ভিত্তিপ্রস্তরস্থাপন, কক্সবাজার ডিসি কলেজ স্থাপন এবং পাঠদানে বোর্ড ও মন্ত্রনালয় এর অনুমতি, ২০১৯ সালে প্রথম বছরে শিক্ষার্থী ভর্তি, অস্থায়ী ক্যাম্পাস প্রস্তুত, কক্সাবাজার ডিসি কলেজের মূল ভবন প্রস্তুত ও স্থানান্তর কাজে ততকালীন জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ কামাল হোসেনের সাথে কক্সবাজারের শিক্ষা বিস্তারে কাজ করেছেন এডিএম জনাব মোহাঃ কামাল হোসেন।

সরকারের ২৫০ বছরের প্রাচীন প্রতিষ্ঠান জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কক্সবাজারবাসীর জন্য ইতিহাসের অন্যতম মানবিক উপহার অরুণোদয়। বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের জন্য কক্সবাজার জেলায় প্রথম স্কুল অরুণোদয়। বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের শিক্ষা ও চিকিৎসার মাধ্যমে পূনর্বাসন ও সমাজের মূল স্রোতে সম্পৃক্ত করতে অরুণোদয় স্কুলের সূচনা লগ্ন থেকে ওতোপ্রোতভাবে জড়িয়ে রয়েছেন মোহাঃ শাজাহান আলি। কক্সবাজার বাসীর ভালোলাগার সকল স্পন্দনে অরুণোদয়। বিশেষ শিশু সহ সকল প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য এখানে রয়েছে শিক্ষা ও চিকিৎসার জন্য বিশেষ সেবা সুবিধা। স্কুলটির নির্মাণ কাজ থেকে শুরু করে শিক্ষক নিয়োগ, কারিকুলাম তৈরী, সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি ও শিক্ষার্থীদের জন্য ভর্তি ও খেলাধুলার ব্যবস্থা এবং বিশেষত বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনে নিরলসভাবে প্রাক্তন জেলা প্রশাসক, কক্সবাজার জনাব মোঃ কামাল হোসেন স্যারকে সহযোগিতা প্রদান করেছেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোহাঃ শাজাহান আলি কক্সবাজার।

READ  যারা নাশকতা চালিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে কক্সবাজারে আইনজীবীদের মাঝে অতি জনপ্রিয় বিচারক জনাব মোহাঃ শাজাহান আলি। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এর আদালতে সকল বিচার প্রার্থীদের কাছে আস্থার পরিচয় রেখেছেন। তিনি সর্বদাই আইন ও দলিলাদির ভিত্তিতে তাঁর আদালত পরিচালিত হয়ে এসেছে। আইনজীবীরা আস্থার সাথে মামলার কাজ করার সুযোগ পায় এই কর্মকর্তার নিষ্ঠা আর সততার জন্য। গত ২ বছর আইনজীবী সমিতির সকল সদস্য তাঁকে যেমন সম্মান করেন তেমনি তাঁর সকল আদেশকে শ্রদ্ধা করেন।

তাঁর নিয়মিত কাজের পাশাপাশি জেলা প্রশাসনের এনজিও কার্যক্রমটি তিনি দায়িত্বশীলতার সাথে পরিচালিত করে আসছেন। তিনি এনজিও প্রতিনিধিদের সাথে সম্মান, বিনয় আর ভদ্রতার মাধ্যমে কথা বলেন এবং তাদের কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে আন্তরিক থাকেন। তিনি তাঁর বিনয় আর ভদ্রতা দিয়ে এনজিও প্রতিনিধিদের মাঝে যেমন সম্মানীয় তেমনি তিনি এনজিও কার্যক্রম পরিচালনায় স্বচ্ছতার পরিচয় দিয়েছেন। অন্যদিকে এনজিও কার্যক্রমে হোস্ট কমিউনিস্টির উন্নয়নে ছিলেন সর্বদা আন্তরিক। করোনাকালীন সময়ে জেলা প্রশাসন, কক্সবাজারের স্বাস্থ্যসেবায় যে অভূতপূর্ব সাফল্যের পরিচয় দিয়েছিলেন তাঁর যোগ্য অংশীদার মোহাঃ শাজাহান আলি। করোনাকালীন সময়ে তিনি তাঁর জুনিয়র সহকর্মীদের সাথে যেমন মাঠে কাজ করেছেন তেমনি কক্সবাজার জেলায় সকল আইসোলেশন সেন্টারে স্থানীয় ও বিদেশী এনজিওদের সম্পৃক্ততা বৃদ্ধি করেছেন। এনজিও কার্যক্রমের পাশাপাশি ইউএনএজেন্সির সাথে জেলা প্রশাসনের সমন্বয়ে তিনি মেধাবীর সাক্ষর রেখেছেন। তিনি হোস্ট কমিউনিটির স্বার্থকে এগিয়ে নিতে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে হোস্ট কমিউনিটির উন্নয়নে ডেভেলপমেন্ট প্লান প্রস্তুতে অবদান রেখেছেন যার কাজ ইউএনডিপির সহযোগিতায় চলমান রয়েছে। তিনি বিশ্বাস করেন এর মাধ্যমে এনজিওরা হোস্ট কমিউনিটি উন্নয়নে তাদের ভবিষ্যৎ কাজের একটা পরিপূর্ণ ধারণা পাবে।

পর্যটন রাজধানী হিসেবে কক্সবাজারে পর্যটনের বিকাশে তিনি কাজ করে আসছেন। তাঁর স্বল্প সময়ের পর্যটনের দায়িত্বে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা পরিচয় দিয়েছেন। অবৈধ উচ্ছেদ আর অবৈধ দখল প্রতিরোধ করছেন তেমনি কিভাবে পর্যটনের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করা যায় তা নিয়ে বিভিন্ন পরিকল্পনাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তিনি পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে কিভাবে পর্যটন উন্নয়নে কাজ করা যায় এ নিয়ে সকলের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করছেন। কক্সবাজারের জন্য তার এ আন্তরিকতা ও দরদ এভাবে একজন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের কাছে পূর্বে খুব কমই অনুভব করা গেছে।

READ  ইসলামে উদারতা ও সহিষ্ণুতার সৌন্দর্য

মানবিক গুণে গুণান্বিত এই কর্মবীর কর্মকর্তার জন্য শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা। ভবিষ্যৎ কর্মময় জীবন যেন আরো আলোকিত হয় এই রইলো নিরন্তর শুভকামনা।

admin

Read Previous

বাইডেনকে নিয়ে চিন্তিত ফেইসবুক

Read Next

জান্নাতে যাওয়ার ৫ আমল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *