• সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১

সাকিব কোথায় যাবেন সেটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার: হাইকোর্ট

সাকিবকে হত্যার হুমকিদাতা আসামির জামিন শুনানিতে আদালত বলেছে, ‘একজন বিশ্বমানের ক্রিকেটার কালিপূজায় যাবে, নাকি অন্য কোথায় যাবে সেটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। এজন্য তাকে হত্যার হুমকি দেবে?

ভারতের কলকাতায় কালীপূজার অনুষ্ঠান যাওয়াকে কেন্দ্র করে ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে হত্যার হুমকিদাতা সিলেটের মহসীন তালুকদারকে জামিন দেয়নি হাইকোর্ট। তবে তাকে কেন জামিন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে আদালত।

জামিন শুনানিতে আদালত বলেছে, একজন বিশ্বমানের ক্রিকেটার কালিপূজায় যাবে, নাকি অন্য কোথায় যাবে সেটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। এজন্য তাকে হত্যার হুমকি দেবে?

আসামিকে উদ্দেশ্য করে আদালত বলে, ‘তার কাছে (সাকিবকে) ক্ষমা চাইতে হবে কেন। সে কে?’

সাকিবকে হত্যার ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার আসামির জামিন আবেদনের শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেয় এবং মন্তব্য করে।

আদালতে আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী জাহাঙ্গীর হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মোহাম্মদ বশির উল্লাহ।

পরে ড. বশির উল্লাহ বলেন, আদালত তাকে জামিন দেয়নি। তবে জামিন প্রশ্নে রুল জারি করেছে।

ভারতের কলকাতায় একটি পূজা মণ্ডপে যাওয়ার ঘটনায় ২০২০ সালের ১৫ নভেম্বর রাত ১২টা ৭ মিনিটে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফেসবুক লাইভে এসে চাপাতি দেখিয়ে সাকিবকে হত্যার হুমকি দেন সিলেটের মহসীন তালুকদার নামের ওই যুবক। পরে গত ১৭ নভেম্বর সাকিব আল হাসানকে হত্যার হুমকি ঘটনায় মহসীন তালুকদারকে গ্রেপ্তার করা হয়।

হুমকিদাতা মহসীন তালুকদার সিলেট সদর উপজেলার টুকেরবাজার ইউনিয়নের তালুকদার পাড়া গ্রামের আজাদ বক্সের ছেলে।

ফেসবুক থেকে লাইভে সাকিব আল হাসানকে হত্যার ঘোষণা এবং পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের অনুসরণ করার পরামর্শ দিয়ে মহসীন তালুকদার নামের ওই ব্যক্তি গালিগালাজ করেন। এ সময় ওই যুবক সাকিব আল হাসানের সেলফি তোলা নিয়ে ভক্তদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করার সমালোচনা করেন তিনি।

READ  কর্ণফুলী টানেল: সম্ভাবনার নতুন দুয়ার

১৬ নভেম্বর সকালে ফের লাইভে এসে আগের লাইভের কথাগুলোর জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন মহসীন তালুকদার। ১৬ নভেম্বর মহসিন তালুকদারের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে জালালাবাদ থানায় এসআই মাহবুব মোর্শেদ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় আটক হয়ে তিনি কারাগারে আছেন।

Pial

Read Previous

শেষ দুটি ইচ্ছা পূরণ হলো চিত্রনায়ক শাহিন আলমের

Read Next

গুগল-ফেসবুক-টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *