• জুন ১৬, ২০২১

আসছে কঠোর সিদ্ধান্ত

আওয়ামী লীগের অন্তর্দ্বন্দ্বে অশান্ত নোয়াখালী শান্ত করতে কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। এ জন্য বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জাসহ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রথমে প্রশাসনিক ও পরে দলীয়ভাবে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ইতোমধ্যে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিতে সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গতকাল বুধবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলেছেন। তিনি প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে পরামর্শ দিয়েছেন। এরপর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কথা বলেছেন নোয়াখালীর পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেনের সঙ্গে। তিনি বসুরহাটের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার প্রয়োজনে যে কোনো সিদ্ধান্ত দ্রুত কার্যকরের নির্দেশ দিয়েছেন।
আগামী ১৩ মার্চ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠক ডাকা হয়েছে। এ বৈঠকে সংসদের লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উপনির্বাচনসহ ১১টি পৌরসভা ও ৩৭১টি ইউনিয়ন পরিষদ

নির্বাচনের জন্য দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে। দলের শীর্ষ নেতারা ওই বৈঠকে বসুরহাটের ঘটনা নিয়ে আলোচনার প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন।
সাম্প্রতিক সময়ে নোয়াখালীর বসুরহাটে সৃষ্ট অস্থিরতা দেশজুড়ে আলোচিত ঘটনা। বিশেষ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জার বক্তব্য ও কর্মকাণ্ড নিয়ে রীতিমতো বিব্রতকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। দলের জন্য বিব্রতকর কথাবার্তা এবং তার সঙ্গে স্থানীয় দলের নেতা সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমানের দ্বন্দ্বে সর্বশেষ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তিন সপ্তাহের মধ্যে একজন সাংবাদিক ও গত মঙ্গলবার রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে একজন শ্রমজীবীর প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। আহত হয়েছে বহুজন।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সমকালকে জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাকে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এ সময় কোম্পানীগঞ্জে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারী এবং প্রাণঘাতী সংঘর্ষে জড়িতদের কাউকেই ছাড় না দেওয়ার তাগিদও দিয়েছেন ওবায়দুল কাদের। তিনি এ ক্ষেত্রে কারও পরিচয় না দেখার অনুরোধ করেছেন।

READ  ভাস্কর্য ইস্যুতে ফায়দা লোটার চেষ্টায় সরকার

আওয়ামী লীগের কয়েকজন নীতিনির্ধারক নেতা জানিয়েছেন, দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী গতকাল পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ, র‌্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন, চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) আনোয়ার হোসেন ও নোয়াখালীর পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেনের সঙ্গে কথা বলে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগভাবে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি তাদের বলেছেন, আইন সবার জন্যই সমান। আর অভিযুক্তদের কেউ তার আত্মীয় হলেও ছাড় পাবে না।
এর পরপরই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কথা বলেছেন নোয়াখালীর পুলিশ সুপারসহ সংশ্নিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে। তিনি বসুরহাটের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার প্রয়োজনে যে কোনো সিদ্ধান্ত দ্রুত কার্যকরের নির্দেশ দিয়েছেন। এরই ধারাবাহিকতায় অপরাধীদের গ্রেপ্তারে বসুরহাটে কঠোর অভিযান শুরু হয়েছে। গতকালই কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।
বসুরহাট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নির্বাচনী এলাকার একটি অংশ। এ কারণে সেখানকার ঘটনাবলি দলের নেতাকর্মীদের কাছে খুবই স্পর্শকাতর। এ নিয়ে দলের হাইকমান্ড বেশ বিব্রত। এসব নিয়ে আওয়ামী লীগের উচ্চ পর্যায়ের নেতারা কথা বলেছেন আবদুল কাদের মির্জার সঙ্গে। এর পরও পরিস্থিতির উত্তরণ হয়নি। শেষ পর্যন্ত রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে।

আওয়ামী লীগ নেতারা মনে করছেন, বসুরহাটের ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত ও নিন্দনীয়। সাংগঠনিক দৃষ্টিতে শৃঙ্খলা পরিপন্থি। সেখানে যা কিছু ঘটেছে, তার কিছুই প্রত্যাশিত নয়। এ ঘটনায় দল স্থানীয়ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জাতীয়ভাবে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণম্ন হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রহমান সমকালকে বলেন, পুরো ঘটনাই উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠার। এর সুরাহা দরকার।
আওয়ামী লীগের চট্টগ্রাম বিভাগের সাংগঠনিক কার্যক্রম দেখভালের পুরোভাগে রয়েছেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল-আলম হানিফ ও সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন। বসুরহাটের ঘটনা নিয়ে জানতে চাইলে তারা কোনো মন্তব্য করেননি।
পুরো ঘটনা তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দকে সাংগঠনিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তাদের রিপোর্ট কেন্দ্রে আসার পর দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সে ক্ষেত্রে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ও বসুরহাট পৌরসভা আওয়ামী লীগের কমিটি ভেঙে দেওয়ারও প্রস্তুতি রয়েছে।

READ  ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেবে না বিএনপি

Pial

Read Previous

মুম্বাইয়ে বঙ্গবন্ধুর ৩২ নম্বরের বাড়ি!

Read Next

পবিত্র শবেমিরাজে বিশ্বনবীকে বিশেষ সম্মাননা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *