• সেপ্টেম্বর ২১, ২০২১

জিএম কাদেরের মতে ডিজিটাল আইন সংশোধন জরুরি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ভিন্নমত দমনে ব্যবহার হচ্ছে অভিযোগ করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, অবিলম্বে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন জরুরি হয়ে পড়েছে। আইনের যে ধারাগুলো মানুষের মুক্ত চিন্তার অধিকার এবং বাক ও ব্যক্তি স্বাধীনতার প্রতি হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে, তা সংশোধন করার জোর দাবি জানাচ্ছি।

রোববার রাজধানীতে এক সভায় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের এ কথা বলেন। তিনি বলেন, রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ দমনের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কতিপয় ধারা। কিছু কিছু ধারায় বর্ণিত অপরাধ অজামিনযোগ্য, যা মানবাধিকারের পরিপন্থী।

বনানীতে জাপা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় জি এম কাদের বলেন, সাইবার অপরাধ দমনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রয়োজনীয়তা আছে। এ আইনটি গুরুত্বপূর্ণ। জাতীয় পার্টি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিপক্ষে নয়। কিন্তু ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কতিপয় ধারা নিবর্তনমূলক, যা ভিন্নমত দমনে ব্যবহার হচ্ছে এবং গণতান্ত্রিক অধিকার খর্ব করছে।

জিএম কাদেরের মতে ডিজিটাল আইন সংশোধন জরুরি
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: রোববার, ৭ মার্চ, ২০২১, ৬:০৮ পিএম | অনলাইন সংস্করণ Count : 26
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ভিন্নমত দমনে ব্যবহার হচ্ছে অভিযোগ করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, অবিলম্বে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন জরুরি হয়ে পড়েছে। আইনের যে ধারাগুলো মানুষের মুক্ত চিন্তার অধিকার এবং বাক ও ব্যক্তি স্বাধীনতার প্রতি হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে, তা সংশোধন করার জোর দাবি জানাচ্ছি।

রোববার রাজধানীতে এক সভায় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের এ কথা বলেন। তিনি বলেন, রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ দমনের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কতিপয় ধারা। কিছু কিছু ধারায় বর্ণিত অপরাধ অজামিনযোগ্য, যা মানবাধিকারের পরিপন্থী।

বনানীতে জাপা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় জি এম কাদের বলেন, সাইবার অপরাধ দমনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রয়োজনীয়তা আছে। এ আইনটি গুরুত্বপূর্ণ। জাতীয় পার্টি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিপক্ষে নয়। কিন্তু ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কতিপয় ধারা নিবর্তনমূলক, যা ভিন্নমত দমনে ব্যবহার হচ্ছে এবং গণতান্ত্রিক অধিকার খর্ব করছে।

READ  ৩৭১ ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কারা, জানা যাবে শনিবার

তিনি বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কতিপয় ধারা গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সীমিত করেছে। গণমাধ্যম বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মতপ্রকাশের অধিকার অনেকাংশেই রোধ করেছে।

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান আনিসুল ইসলাম মাহমুদের সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, দলের মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, কো-চেয়ারম্যান মুজিবুল হক চুন্নু, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, ফখরুল ইমাম, প্রদেশিক ব্যবস্থা বাস্তবায়ন জাতীয় সমন্বয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুনীল শুভ রায় প্রমুখ।

Pial

Read Previous

গুচ্ছ পদ্ধতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু ১ এপ্রিল

Read Next

দেশের ৪ অঞ্চলে বজ্রসহ বৃষ্টির আভাস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *